স্মার্ট সিটি, বুদ্ধিভিত্তিক গাড়ি ও হাইব্রিড ক্লাউড সল্যুশন নিয়ে হুয়াওয়ে

ভবিষ্যতে প্রযুক্তিগত সেবা দেয়ার লক্ষ্যে বিশ^খ্যাত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে অংশীদারিত্বের যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে টেকনোলজি জায়ান্ট হুয়াওয়ে। শহরে টেকসই, নিরাপদ এবং উপযুক্ত শক্তির ব্যবহারযোগ্য স্মার্ট ভবন নির্মাণে ‘ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি)’ প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করবে হানিওয়েল ও হুয়াওয়ে।

বিশ্বব্যাপি শহুরে অবকাঠামোগত ভবন নির্মাণের মধ্য দিয়ে বিশাল পরিসরে স্মার্ট সিটি বিনির্মাণে একসঙ্গে কাজ করবে প্রতিষ্ঠান দুটি। কমে যাবে ভবন নির্মাণ সংক্রান্ত খরচাদি, ফলে বাসস্থান হয়ে উঠবে অনেক বেশি বসবাসযোগ্য। এশিয়ার মতো ঘনবসতিপূর্ণ অঞ্চলে স্মার্ট সিটি নির্মাণে অভিনব প্রযুক্তি নিয়ে মূলত কাজ করবে হানিওয়েল। উল্লেখ্য, এ অঞ্চলে দ্রুততার সঙ্গে বাড়ছে শহর এলাকা।

সম্প্রতি চীনের সেনঝেনে ‘লঙ্গেং স্মার্ট সিটি’ নামের একটি প্রকল্পে একসঙ্গে কাজ করছে হানিওয়েল ও হুয়াওয়ে। উক্ত প্রকল্পে বিল্ডিং অটোমেশন সিস্টেম, নিরাপত্তা এবং আগুন নির্বাপণ ব্যবস্থা সরবরাহ ও পরিচালনা করছে হানিওয়েল। এছাড়া কানেক্টেড বিল্ডিং সল্যুশন, বিল্ডিং ম্যানেজমেন্ট ড্যাশবোর্ড, অ্যালার্ম সিস্টেম, ওয়ার্ক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট এবং কুইক রেসপন্স ও প্রিভেন্টিভ মেইন্টেন্যান্স সিস্টেম সরবরাহ করছে প্রতিষ্ঠানটি। অন্যদিকে প্রকল্পটিতে আইসিটি অবকাঠামো যেমন- ডাটা সেন্টার, সিকিউরিটি প্রটেকশন এ্যান্ড মনিটরিং, আইওটি গেটওয়ে এবং ক্লাউড সেবা দিচ্ছে হুয়াওয়ে।

এছাড়া, কানেক্টেড গাড়ি রূপান্তর, গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ডিজিটাল রূপান্তরের ক্ষেত্রে সহায়তা করার লক্ষ্যে ইতালির মেটাসিস্টেম-এর সঙ্গে অংশীদারিত্বে গিয়েছে হুয়াওয়ে। মেটাসিস্টেম-এর কানেক্টেড কার ডিভাইস ও অ্যাপ্লিকেশন প্রতিস্থাপনের লক্ষ্যে ওশেনকানেক্টেড আইওটি প্ল্যাটফর্ম প্রদানের মাধ্যমে ইউবিআই সল্যুশন দেবে হুয়াওয়ে।

হাইব্রিড ক্লাউড ব্যাকআপ সল্যুশন প্রদানের লক্ষ্যে কমভল্ট-এর সঙ্গে অংশীদারিত্বে গিয়েছে হুয়াওয়ে। কমভল্ট সফটওয়্যারের ব্যবহারের মাধ্যমে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি, নিরাপত্তা নিশ্চিৎকরণসহ হুয়াওয়ে পাবলিক ক্লাউড প্ল্যাটফর্মে গুরুত্বপূর্ণ ও ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষণ করতে পারবে।

ডাটা ব্যাকআপ বা তথ্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রে উল্লেখিত সল্যুশন ব্যাপক হারে গ্রাহকের খরচ কমাতে সহায়তা করবে। এছাড়া ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো চাহিদা অনুযায়ী অন-ডিমান্ড স্টোরেজ সুবিধা পাবেন যাতে প্রতিষ্ঠানের প্রবৃদ্ধিতে কোনো ধরনের বাধার সৃষ্টি না হয়। অধিক নিরাপত্তা ব্যবস্থার ক্লাউড প্ল্যাটফর্মটিতে জটিল ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রে সহজেই পরিকল্পনা এবং বিনামূল্যে পরিচালনা সেবা পাওয়ার সুযোগ পাবে এন্টারপ্রাইজগুলো।

প্রযুক্তিকথন/ডেস্ক/

Related posts

Leave a Comment