অ্যাসোসিও পুরস্কার পাচ্ছে বিআইটিএম

এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় ভূ-অঞ্চলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের শীর্ষ সংগঠন এশিয়ান-ওশেনিয়ান ক¤িপউটিং ইন্ডাস্ট্রি অর্গানাইজেশন (অ্যাসোসিও) আয়োজিত ২০১৭ অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ডস পাচ্ছে বেসিস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (বিআইটিএম)। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের জন্য দক্ষ জনবল তৈরির ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখায় এই পুরস্কার পাচ্ছে বেসিসের সহযোগি এই প্রতিষ্ঠানটি।

বিআইটিএমের পাশাপাশি এবারের অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ডসে আরও তিনটি বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান পুরস্কার পাচ্ছে। এগুলো হলো- আউটস্ট্যান্ডিং আইসিটি কো¤পানি ক্যাটাগরিতে ‘আমরা হোল্ডিংস লিমিটেড- উই স্মার্ট সল্যুউশন্স’, ডিজিটাল গভর্ণমেন্ট ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ পোস্ট অফিস ও তথ্যপ্রযুক্তি শিক্ষায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল।

অ্যাসোসিওর বাংলাদেশি সদস্য সংগঠন বাংলাদেশ ক¤িপউটার সমিতি (বিসিএস) এর মাধ্যমে পুরস্কার প্রাপ্তির বিষয়টি অবহিত করেছে অ্যাসোসিও। আগামী ১০ থেকে ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, তাইওয়ানের তাইপে নগরীতে অ্যাসোসিও আইসিটি সামিটে অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে। এতে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিসহ বাংলাদেশ থেকে বাংলাদেশ ক¤িপউটার সমিতি (বিসিএস) এর নেতৃত্বে ৫০ সদস্যবিশিষ্ট একটি প্রতিনিধিদল অংশগ্রহণ করবে।

উল্লেখ্য, বেসিস ২০০৭ সালে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে প্রশিক্ষণ শুরু করে। ২০১২ সালে বিআইটিএম প্রতিষ্ঠা করা হয়। এ পর্যন্ত নিজস্ব প্রশিক্ষণ ছাড়াও অর্থ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন এসইআইপি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ২৫ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে বিআইটিএম। প্রশিক্ষণার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয়ে এক থেকে তিন মাস মেয়াদী বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এসইআইপি প্রকল্পের আওতায় আরও ১০ হাজার দক্ষ জনবল তৈরির প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলছে। আরও ৩০ হাজার তথ্যপ্রযুক্তি প্রফেশনাল তৈরির কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। বিআইটিএমে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের চাকরি প্রাপ্তির হার ৬০ শতাংশের বেশি। অবশিষ্টদের অধিকাংশই ফ্রিল্যান্স পেশাজীবি হিসেবে কাজ করছেন।

উপরোক্ত প্রশিক্ষণের পাশাপাশি বেসিস তার সদস্য কোম্পানিগুলোর সাথে যৌথ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চালাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- হেড ব্লকস, জেনুইটি সিস্টেমস লিমিটেড, বেটার কমিউনিকেশন অ্যান্ড অটোমেশন লিমিটেড, স্টার কম্পিউটার সিস্টেমস লিমিটেড, ইসফট এরিনা লিমিটেড, ঢাকা সেন্ট্রেনিক আইটি লিমিটেড, অলিভাইন লিমিটেড, ইউওয়াই সিস্টেম লিমিটেড, নেটসফট সল্যুউশন লিমিটেড, বিজনেস অ্যাক্সিলারেট বিডি লিমিটেড, ডাটাপার্ক বিডি লিমিটেড, হিউম্যাক ল্যাব লিমিটেড, লিডস ট্রেনিং অ্যান্ড কনসালটিং, মাইক্রোম্যাক টেকনো ভ্যালি লিমিটেড, মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট অ্যান্ড কমিউনেকশনস লিমিটেড (এমসিসি), সিগমা সিস্টেমস প্রাইভেট লিমিটেড, পিপল এন টেক, টেকনোবিডি ওয়েব সল্যুউশনস প্রাইভেট লিমিটেড, দ্য কম্পিউটার্স লিমিটেড (ঢাকা), এআরকে টেকনোলজি, বিটবার্ডস সল্যুউশনস, ডেভেলপ আইটি লিমিটেড, প্রাইম টেক সল্যুউশনস লিমিটেড, নেক্সিম, ইউএস সফটওয়্যার লিমিটেড, ন্যানোটেক সল্যুউশন অ্যান্ড কনসালটেন্সি, নিটা সফটওয়্যার লিমিটেড ও ই-সফট।

বিআইটিএমে বর্তমানে ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, ডিজিটাল মার্কেটিং, গ্রাফিক্স ও অ্যানিমেশন, প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট, সফটওয়্যার টেস্টিং, নেটওয়ার্কিং ও সিকিউরিটি, গেইম ডেভেলপমেন্ট, বিগ ডাটা ও ডাটা ইত্যাদি বিষয়ে প্রায় অর্ধশত প্রশিক্ষণ চালু রয়েছে।

প্রযুক্তিকথন/ডেস্ক/

Related posts

Leave a Comment