স্বপ্নের আইফোন পাওয়া যাবে বৃহস্পতিবার

বাংলাদেশের বাজারে স্বপ্নের আইফোন-৮ পাওয়া যাবে বৃহস্পতিবার থেকে। অ্যাপেলের অনুমোদিত প্রতিনিধি কম্পিউস্টার প্রাইভেট লিমিটেডের মাধ্যমে এটি বাংলাদেশের বাজারে আসছে। একইসঙ্গে এ ফোনটি বিশেষ প্যাকেজের মাধ্যমে রবি এবং গ্রামীণফোনও বিক্রি করবে বলে জানিয়েছেন কম্পিউস্টারের বিজনেস কন্ট্রোলার (মোবাইল বিভাগ) মোহাম্মদ আফিস আলমগীর।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, আগামীকাল মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে। এর আগে গত ১২ সেপ্টেম্বর অ্যাপেল এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ২২ সেপ্টেম্বর থেকে আইফোন-৮ বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেয়। ফোনটির প্রি-অর্ডার শুরু হয় গত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে।

আইফোন ৮ সম্পর্কে অ্যাপেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অনেকটা আইফোন-৭ এর মতোই আইফোন-৮। তবে নতুন এ ফোনে সিঙ্গেল ক্যামেরার পাশাপাশি গ্লাস ব্যাকও ব্যবহার করা হয়েছে। রূপালী, ধূসর ও সোনালী রঙে পাওয়া যাবে পানি ও ধুলা প্রতিরোধী আইফোন-৮।

এছাড়া ফোনটিতে ‘ট্রু টোন প্রযুক্তি’ সম্বলিত নিউ রেটিনা এইচডি ডিসপ্লেও ব্যবহার করা হয়েছে। যা পারিপার্শ্বিক আলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য বজায় রেখে প্রদর্শনের স্বয়ংক্রিয় ক্ষমতাযুক্ত। শুধু তা-ই নয়, এর সাউন্ড সিস্টেম ২৫ শতাংশ উন্নতও করা হয়েছে। আইফোন ৮-এ ৬৪ বিটের এ১১ বায়োনিক চিপ থাকায় এটা আইফোন-৭ এর চেয়ে ২৫ শতাংশ দ্রুতগতিতে কাজ করবে।

এর ক্যামেরা সেন্সর এবং প্রসেসর একেবারেই নতুন প্রযুক্তির। যা কম আলোতেও দারুণ কাজ করবে। থাকছে নয়েস রিডাকশন টেকনোলজি। এ ছাড়া আছে কালার ফিল্টারও।

আইফোন-৮-এ ভিডিওর ক্ষেত্রে প্রতি সেকেন্ডে ৬০ ফ্রেমযুক্ত ৪কে ভিডিও কোয়ালিটি রয়েছে। সেই সঙ্গে স্লো-মোশন ভিডিওর জন্য এটি কাজ করবে প্রতি সেকেন্ডে ২৪০ ফ্রেম মুভ করার মাধ্যমে।

অ্যাপলের পক্ষ থেকে আরো বলা হয়েছে, আইফোন-৮ বাজারে প্রচলিত অন্য অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মতো ওয়ারলেস চার্জার ব্যবহার করা যাবে। এমনকি ব্যবহার করা যাবে থার্ড পার্টি ওয়ারলেস চার্জারও। ৬৪ জিবির এ আইফোনের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৯৯ ডলার। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৫৭ হাজার ৯০৭ টাকা।

Related posts

Leave a Comment