জানুয়ারিতে দেশে ফোরজি চালু

আগামী জানুয়ারি মাস থেকে দেশে চালু হচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত চতুর্থ প্রজন্মের (ফোরজি) টেলিযোগাযোগ সেবা।

ইতোমধ্যেই মোবাইল ফোন অপারেটরদের আপত্তিগুলো নিষ্পত্তি করে ফোরজি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলাম গাইডলাইনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুমোদন দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

এই অনুমোদনের পর আগামী বছরের জানুয়ারি মাস থেকে দেশে ফোরজি সেবা চালুর পথে আর কোনো বাধা থাকছে না বলে জানিয়েছেন তিনি।।

ফোরজি চালু বিষয়ে বুধবার সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তারানা হালিম।

তিনি বলেন, আমরা আনন্দের সঙ্গে বলছি যে, সংশোধিত ফোরজি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলাম গাইডলাইন প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন। কিছুক্ষণ আগে আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে। পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের ক্ষেত্রে আর কোনো বাধা নেই এবং আমাদের কার্যক্রম শুরু করে দিতে পারি।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে অপারেটররা যে ২৩টি বিষয় বিবেচনার জন্য অনুরোধ করেছিল তার মধ্যে ২২টি সম্পূর্ণভাবে এবং ২৩ নম্বরটি আংশিকভাবে বিবেচনা করেছি।

ফোরজি লাইসেন্স আবেদন ফি আগে ছিল ৫ লাখ টাকা, এখনও তাই আছে। লাইসেন্স এক্যুইজেশন ফি পূর্বে ছিল ১৫ কোটি, সেটি এখন ১০ কোটি টাকা। বার্ষিক লাইসেন্স ফি সাড়ে সাত কোটি থেকে কমিয়ে ৫ কোটি টাকা, রেভিনিউ শেয়ারিং ১৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ দশমিক ৫ শতাংশ করা হয়েছে। ব্যাংক গ্যারান্টি ১৫০ কোটি টাকাই রয়েছে।

প্রযুক্তিকথন//ডেস্ক/