‘অামি অাপনাদের জব্বার ভাই’

এক বছরেই বাংলাদেশকে বদলানো সম্ভব বলে মক্তব্য করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়া মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, আমি আপনাদের জব্বার ভাইই থাকতে চাই। আপনারা আমাকে জব্বার ভাই বলেই ডাকবেন। তিনি বলেন, আজ থেকে আপনাদেরও দায়িত্ব বেড়ে গেল। আমি যদি মন্ত্রিত্বে ফেল করি, এই ফেল করা শুধু আমার একার না। এই ফেল করা আপনাদের সবার।

‍অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) ‌‘আমরা গর্বিত’ শিরোনামের আনুষ্ঠানিক সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, দেশের সকল আইসিটি ব্যক্তিত্ব, বেসিসের সকল সভাপতি, সদস্য, এবং কার্যনির্বাহীর সকল সদস্য।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, সরকার আর ক্ষমতায় আছে এক বছর, এই সময়ের মধ্যে সব কিছু করা সম্ভব না হলেও গুরুত্বপূর্ণ অনেক কিছুই করা সম্ভব। দেশ ডিজিটাল হতে গেলে সরকারকে ইন্টারনেটের বিষয়ে আরো জোর দিতে হবে। আর আমি তাই করবো। ইন্টারনেটের দাম কমানো এবং তার গতি বাড়াবো।

তিনি আরো বলেন, আমার মন্ত্রণালয়ে কোন বিদেশি প্রতিষ্ঠান একতরফা কাজ করতে পারবে না। আমি ইংরেজি বিরোধী না, তবে দেশের ৯৬ শতাংশ মানুষ ইংরেজি বুঝে না। তাই স্থানীয় ভাষায় কনন্টেট দরকার।

মন্ত্রী বলেন, আমি রাজনীতি করে মন্ত্রী হয়নি। তাই আমরা পিছনে সোগ্লান দেয়ার মানুষ নাই। তবে আমার রয়েছে সারাদেশে প্রযুক্তিসৈনিক, আমার মত এত সৈনিক আর কোন মন্ত্রীর নাই। আমি বাইরে হতে যা জানতাম, আমাদের সরকারের আইটি সম্পৃক্ত এরিয়াতে তার চেয়ে হাজার গুণ বেশি সমস্যা আছে। আমি ধারণা করতে পারিনি টেলিকম ডিভিশনের ভেতরে ক্যান্সারের মতো সমস্যা বিরাজ করে এবং তা সমাধানে কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি।

মোস্তাফা জব্বার আরো বলেন, আমি সারাজীবন দেশকে ডিজিটাল করার লড়াই করেছি। আজ মন্ত্রী হয়েছি বলে তা ভুলে যাবো না। এক বছরের মন্ত্রী জন্য ৬৯ বছরের কামানো সম্মান নষ্ট করবো না।

এই সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিভিন্ন প্রযুক্তি সংগঠনের সভাপতি। বাংলাদেশে আইসিটি জানালিষ্ট ফোরাম (বিআইজেএফ) এর সকল সাংবাদিকরাও এই সময় উপস্থিত ছিলেন।