বাংলায় মাইক্রোসফটের কাইজালা

বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় (পিএমও) ইতিমধ্যেই পরীক্ষামূলক প্রকল্পসমূহে মাইক্রোসফট কাইজালা ব্যবহার শুরু করেছে বলেও জানায় মাইক্রোসফট।

মাইক্রোসফটের অফিস প্রোডাক্ট গ্রুপের করপোরেট ভাইস প্রেসিডেন্ট রাজিব কুমার বলেন, ডিজিটাল রূপান্তর এবং ভাষার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা দূর করে সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক সুযোগ ও সম্ভাবনার কথা ভেবেই কাইজালা অ্যাপটির বাংলা সংস্করণ আনা।

কাইজালার অভিনব সব ফিচার, বিশেষ করে সহজে ব্যবহারযোগ্য চ্যাট ইন্টারফেইসের মাধ্যমে অসংখ্য ব্যবহারকারীর মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন, অফলাইনেও অবাধে কাজের স্বাধীনতা, সার্ভে ও পোল ব্যবহার করে চলমান অবস্থায় তথ্য সংগ্রহ করা, সাধারণ মোবাইলভিত্তিক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মীদের দক্ষ করে তোলা এবং ম্যাসেজিংয়ের মাধ্যমে কাজ ও সভা ব্যবস্থাপনা, বড় গোষ্ঠির ভেতরে সুবিন্যস্ত ও সুবিধাজনক উপায়ে করার সুবিধা উন্মুক্ত করবে বলে জানান তিনি।

মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান ও লাওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির বলেন, সরকারি প্রতিষ্ঠানে মাইক্রোসফটের সচরাচর করার মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়ে সরকারের সঙ্গে অংশীদারিত্বে কাজ কছেন তার‍া।

দেশে ১৬ কোটি বাংলা ভাষাভাষী রয়েছে তাই, স্থানীয় ভাষায় কাইজালার পরীক্ষামূলক বাস্তবায়ন ভাষার প্রতিবন্ধকতা দূর করে ডিজিটাল মাধ্যমের সুযোগের বিস্তৃতি ঘটাবে বলেও জানান সোনিয়া বশির।

বেশকিছু কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দেশে কাইজালার ব্যবহার বাড়াতেও কাজ করছে মাইক্রোসফট।

অ্যাপটি আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েড উভয় প্ল্যাটফর্মেই বাংলায় পাওয়া যাচ্ছে।