বিদেশে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে করণীয়

বেড়ানো কিংবা ব্যবসায়ীক কাজে আমাদের অনেকেরই বিদেশে যাওয়া লাগে। বিদেশে থাকাকালীন কোনও কারণে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে অনেকেই দিশেহারা হয়ে পড়েন। তবে কিছু বিষয় জানলে অতোটা দিশেহারা হবার কারণ থাকে না।

চলুন দেখে নিই বিদেশে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কী করা উচিত।

১। শান্ত থাকুন
এসব পরিস্থিতিতে শান্ত থাকার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই। তাই দিশেহারা না হয়ে মনকে শান্ত রাখুন ও পরবর্তী করণীয়গুলো পালন করুন।

২। পুলিশকে অবহিত করুন
আপনি যখনই যেখানে জানতে পারবেন যে আপনার পাসপোর্ট হারিয়ে গেছে তখনই কাছে পুলিশ স্টেশন খুঁজে বের করুন এবং তাদেরকে অবহিত বা রিপোর্ট ফাইল করুন। সেখানে আপনার নাম-পরিচয় ও যোগাযোগের মাধ্যমটি পরিস্কারভাবে লিখুন, যাতে তার পাসপোর্ট খুঁজে পেলে আপনাকে জানাতে পারে। অথবা আপনার কাছ থেকে আরও তথ্য জানার জন্য আপনাকে প্রয়োজন হতে পারে।

৩। স্থানীয় ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করুন
পুলিশকে অবহিত করার পর স্থানীয় ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করুন। তাদেরকে বলুন যে আপনার পাসপোর্ট কিভাবে হারিয়েছে বা চুরি হয়ে গেছে। তাদেরকে অনুরোধ করলে তারা রেডিও মেসেজের মাধ্যমে তাদের ট্যাক্সি, বাস বা অন্যান্য যানবাহন সংশ্লিষ্টদের জানিয়ে দেবে। যদি কোনও চালক এটি খুঁজে পায় তাহলে প্রধান কার্যালয়ে যোগাযোগ করবে যারা আপনার কাছে পাসপোর্টটি ফিরিয়ে দেবে।

৪। দূতাবাসে যোগাযোগ করুন
যেখানে অবস্থান করছেন সেখানে কাছাকাছি অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস খুঁজে বের করুন ও জরুরী সাক্ষাতকার চান। এমনকি এমন পরিস্থিতিতে শিডিউল ছাড়াই সরাসরি গিয়েও উপস্থিত হতে পারেন। দূতাবাস আপনাকে অস্থায়ী ট্রাভেল ডকুমেন্ট অথবা জরুরী সার্টিফিকেট দিতে পারে, যার মাধ্যমে আপনি নিজ দেশে ফেরত আসতে পারবেন। এজন্য কিছু ফি প্রয়োজন হতে পারে।

আপনার যদি পাসপোর্টের সাথে টাকাও হারিয়ে যায় তবে দূতাবাস আপনাকে সাহায্য করতে পারে, এমনকি খাবার ও পানীয় দিতে পারে। তারা আপনার টিকেট কেটে দিবে। পরবর্তীতে দেশে ফিরে ইমিগ্রেশন কিংবা নতুন পাসপোর্ট আবেদন করার সময় এই টাকা ফেরত দিতে হতে পারে।

তবে আর্থিক সাহায্য পেতে দূতাবাসের এই প্রক্রিয়ায় সময় লাগতে পারে। তাই যদি পরিচিত কেউ থাকে তাহলে তার কাছ থেকে টাকা নিয়ে বা টিকেট বুকিং করে দেশে ফিরতে পারেন এবং দূতাবাসকে বিষয়টি জানান। এতে আপনার ও দূতাবাসের সময় বাঁচবে।

৫। ধৈর্য ধরুন
আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ধরণ ও দূতাবাসের কার্যক্রমের গতি অনুযায়ী পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে এক ঘন্টা থেকে একদিন লাগতে পরে। এই সময়ে আপনি ভুলে থাকার চেষ্টা করুন যে আপনার পাসপোর্ট হারিয়ে গেছে। এই সময়টা বিশ্রাম নিন, খাবার খান ও নিজেকে চাঙ্গা রাখুন। আপনার ব্যাগ প্রস্তুত করুন ও প্রিয়জনদের সাথে কথা বলুন।