সামাজিক নিরাপত্তাও বর্তমান সোশ্যল মিডিয়া

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির এই যুগেপৃথিবীতে সোশ্যাল মিডিয়ার সাম্রাজ্য দিনকেদিন বৃদ্ধি পাবে তা সবারই জানা। কিন্তু একই সাথে বৃদ্ধি পাবে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মানুষের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার সম্ভাবনাও। এ জন্য বিষয়টিকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে ৭টি সংকল্পের কথা জানিয়েছে যা আমরা মেনে চললে বহুল প্রচলিত অনেকঅনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিই এড়ানো সম্ভব হবে।

ইনস্টাগ্রাম, টুইটার, ফেইসবুক এসব মাধ্যমে আপনি ছবি পোস্ট করতেই পারেন। কিন্তু বিষয়টি মাত্রা অতিক্রম করলে তা আপনার বন্ধুদের বিরক্তির কারণ হতে পারে। সুতরাং এ বছরের সংকল্প হিসেবে লিখে নিতে পারেন মাত্রাতিরিক্ত ছবি পোস্ট করবেন না। আপনি নিজের অ্যাকাউন্টে সেলফ পিক বা সেলফি পোস্ট করবেন সেটাই স্বাভাবিক  কিন্তু অনেকেই নিজের এমন ছবি পোস্ট করে যা মোটেও স্বাভাবিক নয়। মনে রাখবেন, একবার পোস্ট করা ছবি অনেকটা ছুড়ে দেয়া তীরের মতো, যার গতি আর নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। ফলে এ ছবিটি হয়তো এক সময় আপনাকেই বিব্রত করবে।

আর তাই ভেবেচিন্তে ছবি পোস্ট করার বিষয়টিকেও নিজের সংকল্প তালিকায় স্থান দিতে পারেন। আজকাল অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বন্ধু তালিকা বাড়াতে, লাইক পেতে, ফলোয়ার সংগ্রহ করতে উঠেপড়ে লাগেন। এ বিষয়ে নানাজন জ্ঞানগর্ভ পরামর্শও দিয়ে থাকেন। ওই সব পরামর্শ ঝেড়ে ফেলুন। যোগাযোগ সামাজিকতার ব্যাকরণ একেবারেই পাল্টায়নি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্ধু তালিকায় নামের সংখ্যার চেয়ে সত্যিকারের নেটওয়ার্ক বাড়ানোর চেষ্টা করুন। এতে আপনার যেমন তাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকবে, ঠিক তেমনই কোনো সমস্যায় তাদের কাছে পাওয়ার সম্ভাবনাও বাড়ে।

অনেকেই সামাজিক মাধ্যমে অতিমাত্রায় খাবারের ছবি পোস্ট করে থাকে।এমনকি অনেকে প্রতিদিন কী খাচ্ছে, সেটির ছবিও নিয়মিত পোস্ট করে। বিষয়টি হয়তো আপনার কাছে নিছক আনন্দ। কিন্তু অন্যের বেলায় বিষয়টা বিরক্তিকর। আর তাই অতিমাত্রায় খাবারের ছবি পোস্ট করা থেকে বিরত থাকাটা হতে পারে নতুন বছরের সুন্দর একটি সংকল্প। অনেক টুইটার ব্যবহারকারীই যা মনে আসে তা-ই টুইট করে, অন্যান্য ব্যবহারকারীর ফিড নিজের টুইট দিয়ে ভরিয়ে ফেলে। বিষয়টিকে এক হিসাবে স্প্যাম বলা যেতে পারে। আবার অনেকে অন্যকে কটাক্ষ করে টুইট করে। আপনি যদি এমন একজন হয়ে থাকেন তাহলে নতুন এ বছরটিতে সংকল্প করতে পারেন এ কাজটি আর করবেন না। টুইট করার আগে একবার ভেবে নিন কী টুইট করতে যাচ্ছেন, তার প্রভাব কী হতে পারে।

অনেকেই বন্ধুর বিব্রতকর মুহূর্তের ছবি বা সাধারণ ছবি অনুমতি ছাড়াই পোস্ট করে দেয়। এ বিষয়টি মোটেও ভালো নয়। একবার চিন্তা করে দেখুন এ কাজটি আপনাকে নিয়ে করা হলে সেটি আপনার কেমন লাগত। আর তাই সংকল্প হিসেব ঠিক করতে পারেন বন্ধুর যে ছবিই হোক না কেন, পোস্ট করার আগে অনুমতি নিয়ে তারপর পোস্ট করবেন। সামাজিক মাধ্যমগুলোতে অহরহ ভুয়া খবর পোস্ট হতে থাকে। আর অনেকেই দেখা যায় বিষয়টির সত্যতা যাচাই না করে বিষয়টি শেয়ার করতে থাকে। ফলে সৃষ্টি হয় বিভ্রান্তি। অথচ আপনি একটু কষ্ট করলেই পোস্টটি ভুয়া না সঠিক তা জানতে পারেন। দেশে বিদেশের অনেক প্রতিথযশা গণমাধ্যম রয়েছে,আপনি চাইলেই তাদের সাইটে গিয়ে দেখতে পারেন, বিষয়টি যাচাই করে নিতে পারেন। নতুন বছরের সংকল্প হিসেবে এটিকেও আপনার তালিকাভুক্ত করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *